আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য কেনার নিয়ম

আলীএক্সপ্রেস নামটি বর্তমানে বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে যারা অনলাইনে বিজনেস করে তাদের কাছে আলীএক্সপ্রেস বেশি পরিচিত একটি শব্দ। আলীএক্সপ্রেস ডটকম মুলতঃ অনলাইনে কেনাকাটার একটি ওয়েবসাইট। এই ওয়েবসাইটের পন্যগুলো তুলনামূলক ভাবে দামে সস্তা হওয়ায় এবং বিদেশি পণ্যের উপর দেশের মানুষের চাহিদা বৃদ্ধির কারণে অনেকেই আলি এক্সপ্রেস থেকে পণ্য কেনার চেষ্টা করে থাকেন। কিন্তু সঠিক নিয়ম জানা না থাকার কারনে আমাদের মধ্যে অনেকেই আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য কেনার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন । তাহলে চলুন আজকের আর্টিকেলে আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য কেনার নিয়ম সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।

আলীএক্সপ্রেস ডটকম চীনের একটি ই-কর্মাস ওয়েবসাইট, তাই এইখান থেকে পণ্য কেনার ক্ষেত্রে নিয়মে কিছুটা পার্থক্য রয়েছে। তবে, সেই নিয়মগুলো জানা থাকলে আপনি খুব সহজেই আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য ক্রয় করতে পারবেন।

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক, আলি এক্সপ্রেস থেকে পণ্য কেনার নিয়ম সম্পর্কে। এই আর্টিকেলে আমরা আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য কেনার নিয়মের পাশাপাশি, পণ্য কেনার কিছু কৌশল সম্পর্কে আলোচনা করবো। আর এই কৌশল গুলো ব্যবহার করলে আপনার পণ্য ক্রয় করা আরও সহজ এবং নিরাপদ হবে। পাইকারি ভাবে পণ্য আমদানি করতে চাইলে আপনাকে আলিবাবা ডটকম থেকে পন্য ক্রয় করতে হবে। আলিবাবা থেকে পণ্য কেনার নিয়ম এই লেখাটি পড়ে বিস্তারিত জেনে নিন।

আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য কেনার নিয়ম

আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য কেনার নিয়ম ৫টি। যথা –

  • আলীএক্সপ্রেস অ্যাকাউন্ট খোলা
  • আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য নির্বাচন
  • পেমেন্ট সিস্টেম
  • পণ্য অর্ডার করা
  • পণ্য গ্রহন করা

আলীএক্সপ্রেস অ্যাকাউন্ট খোলা

আলীএক্সপ্রেসে একাউন্ট খোলার জন্য প্রথমে আপনি আলিএক্সপ্রেসের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন । এরপর ওয়েবসাইটের উপরের ডান পাশে Account সেকশন থেকে Join অপশনে ক্লিক করুন।

পরবর্তী পেজে ইমেইল এবং পাসওয়ার্ড টাইপ করে ক্রিয়েট একাউন্ট বাটনে ক্লিক করুন। এরপর আপনার ইমেইল থেকে ইমেইল কনফার্মেশন লিঙ্কে ক্লিক করলেই আপনার একাউন্টটি তৈরি হয়ে যাবে । একাউন্ট করা সম্পন্ন হলে পরবর্তী ধাপে আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য নির্বাচন করতে হবে । এইখানে আমার আলীএক্সপ্রেসের ওয়েবসাইট ব্যবহার করে একাউন্ট খোলার পদ্ধতি দেখিয়েছি। তবে আপনার ইচ্ছা করলে আলী এক্সপ্রেসের অ্যান্ড্রোয়েড অ্যাপ ও আইওএস অ্যাপ এর মাধ্যমেও একই পদ্ধতি অনুসরন করে একাউন্ট খুলতে পারবেন ।

  আলি এক্সপ্রেস

আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য নির্বাচন

আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য নির্বাচন করার জন্য আপনি এর ওয়েবসাইটের ক্যাটাগরি সেকশন থেকে আপনার প্রয়োজনীয় পণ্য খুঁজে নিতে পারেন অথবা ওয়েবসাইটের ঠিক উপরে থাকা সার্চ বারে আপনার কাঙ্ক্ষিত পণ্য টি লিখে সার্চ করুন। এরপর Shop Now অপশনে ক্লিক করলে আপনি পণ্যের বিস্তারিত দেখতে পারবেন। এরপর পণ্যের কালার, সাইজ এবং পরিমাণ নির্বাচন করুন। এরপর শিপিং অপশন (সব সময় এই অপশন থাকবে না) থেকে আপনার পন্যটি কোথা থেকে শিপ হবে সেটা সিলেক্ট করুন। Shipping এর অর্থ হল কোন কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে পন্যটি আপনার কাছে পৌঁছাবে। এখানে ফ্রি শিপিং অপশন থাকলে সেটি সিলেক্ট করে কন্টিনিউ বাটনে ক্লিক করুন। এবার আপনার এড্রেস যুক্ত করুন। ঠিকানায় অবশ্যই পোস্ট অফিসের কোড যুক্ত করবেন। এর পরের ধাপ হল পেমেন্ট সিস্টেম।

পেমেন্ট সিস্টেম

আলিএক্সপ্রেস থেকে পণ্য অর্ডার করার আগে আপনাকে পেমেন্ট মেথড সিলেক্ট করতে হবে। আলি এক্সপ্রেস থেকে ক্যাশ অন ডেলিভারি পাওয়ার কোন সুযোগ নেই। এখান থেকে পণ্য কিনতে হলে, আপনাকে আগে টাকা পরিশোধ করতে হবে। বাংলাদেশ থেকে ৩টি মাধ্যমে পেমেন্ট করতে পারবেন। যথা –

  • মাস্টার কার্ড (ডুয়েল কারেন্সি) যেমন – পেওনিয়ার (Payoneer) মাস্টার কার্ড, ইবিএল অ্যাকুয়া মাস্টার-কার্ড অথবা যে কোন ডুয়েল কারেন্সি সাপোর্ট করে এমন কার্ড।
  • ওয়েব মানি (Web money) ব্যবহার করে
  • ওয়েস্টার্ন ইউনিয়ন (Western union) এর মাধ্যমে

মাস্টার কার্ড এড করতে হবে পণ্য ক্রয় করার সময়। আপনার কার্ডের নাম্বার, নাম (কার্ডে যে নাম রয়েছে), মেয়াদ এবং CVC কোড দিলে কার্ড থেকে অটোমেটিক আপনার পণ্যের দাম কেটে নিবে।

পণ্য অর্ডার করা

কোন প্রোমো কোড বা কুপন কোড থাকলে তা এড করুন। সব কিছু ঠিক ঠাক থাকলে Place Order বাটনে এ ক্লিক করুন। সাধারণত China পোস্ট রেজিস্টার্ড এয়ার mail এবং আলিএক্সপ্রেস Standard Shipping খুব দ্রুত এবং নিরাপদ ভাবে ডেলিভারী দিয়ে থাকে।

পণ্য গ্রহন করা

সাধারণত চায়না থেকে বাংলাদেশে পণ্য আসতে ৭ থেকে ৬০ দিন (কিছু কিছু ক্ষেত্রে আরও বেশী) পর্যন্ত টাইম লাগে। ফ্রি শিপিংয়ের ক্ষেত্রে আপনার অর্ডারকৃত পণ্য পোস্ট অফিসে আসবে। পোস্ট অফিস থেকে পণ্য সরাসরি আপনার বাসায় পৌঁছে দিতে পাড়ে অথবা আপনার গিয়ে পোস্ট অফিস থেকে নিয়ে আসতে হতে পারে।

আর পেইড শিপিং অপশন DHL নির্বাচন করলে প্রোডাক্ট সরাসরি DHL এর অফিসে আসবে। একটি বিষয় খেয়াল করবেন, পণ্য গ্রহন করার সময় যদি কাস্টম চার্জ আসে তাহলে, সেই টাকা পরিশোধ করতে হবে । নিচে এ নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

আলিএক্সপ্রেস থেকে বাংলাদেশে কোন প্রোডাক্টে কত টাকা ট্যাক্স

আলীএক্সপ্রেস থেকে বাংলাদেশে কোন পন্যে এ কত ট্যাক্স বা ভ্যাট হবে তা ঠিক করে বলা মুশকিল। সাধারণত, ৩০ ডলারের নিচে যেগুলোর দাম সেই সব পণ্যে ট্যাক্স দেওয়ার প্রয়োজন হয় না। তবে, অনেক সময় ওজনের কারণে কাস্টম অফিসার চার্জ করে থাকে। এই বিষয়টা অনেকটা আপনার ভাগ্যের উপর ডিপেন্ড করে অনেক সময় ট্যাক্স নাও আসতে পারে। যাই হোক আগের অভিজ্ঞতা থেকে আমরা কিছু প্রোডাক্টের ট্যাক্সের পরিমানের হিসাব দিচ্ছি। তবে, এটা ক্ষেত্র বিশেষে চেঞ্জ হতে পারে। যথা –

  • ৩০ ডলারের নিচে জামা,প্যান্ট, কসমেটিক্স আইটেম, ঘড়ি, সানগ্লাস, জুতা, খাবার, ইলেকট্রনিক্স, কম্পিউটার বা মোবাইল এক্সেসরিজ ইত্যাদির ক্ষেত্রে  কোন ট্যাক্স দেওয়ার প্রয়োজন হবে না।
  • ৩০ ডলারের বেশী দাম কিন্তু ওজন কম যেমন – Apple ওয়াচ– কোন Tax দেয়ার প্রয়োজন হবে না।
  • ৩০ ডলারের বেশী দামী মোবাইল, কম্পিউটার ও অন্যান্য পণ্য এর ক্ষেত্রে ট্যাক্স ১ হাজার থেকে ৭ হাজার টাকা পর্যন্ত হতে পারে।

মনে রাখবেন, বাংলাদেশে কিছু পণ্য বিদেশ থেকে আমদানি করা নিষিদ্ধ যেমন, অ্যাডাল্ট পণ্য, ড্রোন ইত্যাদি প্রোডাক্ট নিয়ে আসা যাবে না।

আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য কেনার কৌশল

  • সবার প্রথমে চেক করে নিন আপনি যে বিক্রেতার থেকে প্রোডাক্ট কিনছেন তিনি কতদিন আগে তার দোকান বা শপটি আলীএক্সপ্রেস ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করিয়েছেন। শপ যত বেশি দিনের পুড়োনো হবে তার পণ্যের নিরাপত্তা তত বেশি হবে।
  • বিক্রেতার “Buyer Protection” পলিসি কি ধরণের অথবা তাদের রিফান্ড পলিসি কেমন সেটা অবশ্যই ভালো ভাবে দেখে নিতে হবে। পণ্য কোন কারনে হাতে না পেলে তারা কি আপনার সম্পূর্ণ টাকা রিটার্ন করবে নাকি অর্ধেক টাকা ফেরত দেবে ইত্যাদি বিষয় গুলো দেখে দিতে হবে।
  • প্রোডাক্ট কেনার আগে পণ্যের বিবরণ ভালো মত পড়ে নেয়া উচিত।
  • যেকোনো প্রোডাক্ট কেনার আগে সেই পণ্যের দাম যাচাই করে নিন। অর্থাৎ, এই বিক্রেতা পণ্যটির দাম অন্য সেলার দের থেকে কম রাখছে নাকি বেশি রাখছে সেটা নিশ্চিত হয়ে নিন।
  • বিক্রেতার আগের রেটিং এবং রিভিউ যাচাই করুন। প্রয়োজনে পূর্বের ক্রেতারা পণ্য কেনার পর রিভিউতে যে ছবি গুলো দিয়েছে তা দেখা। এর মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন সেলার পণ্যের বিবরণে যা বলেছে সেই অনুযায়ী পণ্য দেয় কিনা।
  • এই বিক্রেতার থেকে শেষ কবে ক্রেতারা প্রোডাক্ট ক্রয় করেছিল।
  • প্রোডাক্ট কেনার আগে অবশ্যই সেলারের সাথে কন্ট্যাক্ট করে নেয়া। যেমন- প্রোডাক্টের কোয়ালিটি, প্রোডাক্ট স্টকে রয়েছে কিনা ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা করে নেয়া উচিত।
  • অনেক দামি বা সেনসিটিভ কোন প্রোডাক্ট হলে ফ্রি শিপিং এর মাধ্যমে না নিয়ে আসাই ভাল। এতে প্রোডাক্ট নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
  • পণ্য রিসিভ করার আগে open a dispute অপশনে ক্লিক করা যাবে না।
  • প্রোডাক্ট ব্যবহার বা যাচাই করার পূর্বে receipt অপশনে ক্লিক করবেন না।

শেষ কথা

এই ছিল আজকের আলীএক্সপ্রেস থেকে পণ্য কেনার নিয়ম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা। অনলাইনে যে কোন প্রোডাক্ট কেনার সময় অবশ্যই সাবধান থাকবেন। আর সেই সঙ্গে থার্ড পার্টি কোন ব্যক্তির বা কোম্পানির মাধ্যমে আলিএক্সপ্রেস থেকে পণ্য কেনার আগে সেই ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে ভালভাবে খোঁজ খবর নিয়ে নিবেন।

বিডিটেকটিউনার

Share on:

আমি অঞ্জন, এই সাইটটির প্রতিষ্ঠাতা। এই ব্লগে টিপস & ট্রিকস, অনলাইন ইনকাম, কম্পিউটার সমস্যা সমাধান সহ আরো অনেক কিছুর উপর সঠিক ও নির্ভুল তথ্য দেওয়া হয়।

Leave a Comment