বেস্ট ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট টুলস

আজকের আরটিকেলে আমরা আপনাকে এমন কিছু ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট টুলস সম্পর্কে বলব, যেগুলোর মাধ্যমে আপনি আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটের গতি এবং কর্মক্ষমতা খুব ভালভাবে পরীক্ষা করতে সক্ষম হবেন।

এই সমস্ত ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট টুলগুলি একেবারে বিনামূল্যে এবং আমরা এতে পাওয়া ফলাফলটিকে 100% সঠিক বিবেচনা করতে পারি।

এই ফ্রি ওয়েবসাইট স্পিড টুলসগুলো ব্যবহার করে, আপনি মাঝে মাঝে আপনার ওয়েবসাইটের গতি পরীক্ষা করতে পারেন এবং এটি এই টুলগুলো কিছু নির্দেশিকাও প্রদান করে যার মাধ্যমে আপনি আপনার ওয়েবসাইটকে আরও বেশী দ্রুততর করতে পারেন।

আপনারা খুব ভাল করেই জানেন যে, বর্তমান সময়ে একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগের গতি কতটা গুরুত্বপূর্ণ। সেই সাথে মোবাইলে যখন একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ খোলা হয়, তখন তাতেও ভাল গতি থাকা আবশ্যক।

এমন পরিস্থিতিতে আমাদের ওয়েবসাইট বা ব্লগের স্পীড ভাল রাখতে হবে। আর তার জন্য আমাদের ব্লগের গতি মাঝে মাঝে চেক করতে হবে।

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক কিছু বেস্ট ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট টুলস এবং এদের ব্যবহার সম্পর্কে

বেস্ট ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট টুলস

সেরা কিছু স্পিড টেস্ট টুলস ওয়েবসাইটের তালিকা এবং এগুলোর ব্যবহার নিচে দেওয়া হল –

Google PageSpeed ​​Insights

আমরা Google PageSpeed ​​Insights কে প্রথম নম্বরে রেখেছি কারণ এটি Google এর একটি পণ্য এবং আপনি জানেন যে গুগল কত বড় সার্চ ইঞ্জিন। বেশিরভাগ কাজই আমরা গুগল কে কেন্দ্র করে করে থাকি, এবং আমরা আমাদের ওয়েবসাইট বা ব্লগকে বেশিরভাগই গুগলের সার্চ ইঞ্জিনে র‍্যাঙ্ক করানোর চেষ্টা করে থাকি।

তাই এমন পরিস্থিতিতে গুগল আমাদের ওয়েবসাইট কীভাবে দেখে এবং গুগলে আমাদের ওয়েবসাইটের গতি কেমন তা দেখা আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ।

Google PageSpeed ​​Insights-এ, আপনি মোবাইল এবং ডেস্কটপ উভয় প্ল্যাটফর্মে আপনার ওয়েবসাইটের গতি দেখতে পাবেন। যার ফলে আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ মোবাইলে ভিজিট করলে এর গতি কেমন হবে আর যদি ডেস্কটপ থেকে ভিজিত করা হয় তাহলে এর গতি কেমন হবে।

এখানে আপনি যেকোনো পোস্টের গতি পরীক্ষা করতে পারবেন, এবং সেই সাথে মেইন ওয়েবসাইটের গতিও পরীক্ষা করতে পারেন।

ব্যবহার:

  • প্রথমে আপনার ব্রাউজার থেকে Google PageSpeed ​​Insights লিখে সার্চ করুন এবং সার্চ রেজাল্টে আসা প্রথম লিংকে ক্লিক করুন অথবা সরাসরি এই লিঙ্কে ক্লিক করে Google PageSpeed ​​Insights-এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।
  • এরপর Enter a Web Page URL লেখা ঘরে আপনি যে ওয়েবসাইটের স্পিড টেস্ট করতে চান সেই ওয়েবসাইটের ঠিকানা টাইপ করে Analyze বাটনে ক্লিক করুন।
  • এরপর বাকি কাজগুলি স্বয়ংক্রিয়ভাবে সম্পন্ন হবে। কিছুক্ষণের মধ্যে আপনি আপনার ওয়েবসাইট বা আপনি যে পৃষ্ঠাটি পরীক্ষা করতে চান তার ফলাফল দেখতে পাবেন।
  • আপনি উপরের দিকে থাকা Mobile এবং Desktop লেখাতে ক্লিক করে মোবাইলে আপনার সাইটের গতি এবং ডেস্কটপ থেকে আপনার সাইটের গতি পরীক্ষা করতে পারবেন। Google PageSpeed ​​Insights যেমন খুব ভালো ফলাফল দেখায় তেমনি আপনি যদি নিচের দিকে দেখলে আপনার ওয়েবসাইট কেন স্লো হয়ে যাচ্ছে সেটিও দেখতে পাবেন এবং সেই সাথে কি কি জিনিস পরিবর্তন করলে আপনার ওয়েবসাইট আরও বেশী ফাস্ট হবে সেগুলোও দেখতে পাবেন।
আরও পড়ুনঃ কীভাবে ডোমেইন ট্রান্সফার করবেন

GTmetrix

ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট টুলস হিসেবে Gtmetrix এর নামটি খুব পরিচিত এবং জনপ্রিয়। বেশিরভাগ মানুষ এটি সম্পর্কে জানেন এবং এখানে তাদের ওয়েবসাইটের গতি পরীক্ষা করে থাকেন।

Gtmetrix-এ যা কিছু ফলাফল দেখানো হয় তা বিশদ বিবরন সহ দেখানো হয়। যা আমাদের মত ব্লগার বা ওয়েবসাইট ওনারদের তাদের ওয়েবসাইটের স্পীড উন্নত করা সহজ করে তোলে।

বেশিরভাগ ওয়েব ডেভেলপার, সার্ভার হোস্টিং কোম্পানি , ব্লগার- Gtmetrix ব্যবহার করে।

Gtmetrix ওয়েবসাইটের Summary, Performance, Structure এর মতো একাধিক ফলাফল একসাথে দেখায়। আপনি এটির ভিতরে প্রদর্শিত সমস্ত ফলাফলগুলি নিবিড়ভাবে পরীক্ষা করতে পারবেন এবং দেখতে পারবেন যে আপনার ওয়েবসাইটের কোন জায়গার কারণে আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ স্লো হয়ে যাচ্ছে।

যাইহোক, Gtmetrix এর আরেকটি বৈশিষ্ট্য হল যে আপনি এটিতে একসাথে অনেক ওয়েবসাইট তুলনা করতে পারেন।

আপনি আপনার প্রতিযোগীর ওয়েবসাইটের গতি সম্পর্কে জানতে পারবেন এবং দেখতে পারবেন যে আপনার প্রতিযোগীর ওয়েবসাইট বা ব্লগ থেকে আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ কতটা দ্রুত বা ধীরগতির।

এটি করে আপনি নিশ্চিত হতে পারেন যে আপনার ওয়েবসাইটে কত ত্রুটি রয়েছে বা সার্চ র‍্যাঙ্কে উপরে থাকা ওয়েবসাইট থেকে আপনার ওয়েবসাইটটি কতটা খারাপ। বেশিরভাগ মানুষ তুলনা করার জন্য Gtmetrix ব্যবহার করে।

কারণ তুলনা করলে আপনি দেখতে পারবেন আপনার প্রতিযোগী অনুযায়ী আপনার ওয়েবসাইট স্লো নাকি ফাস্ট। সেই সাথে কি করে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের স্পীড বাড়াতে পারেন তা আপনি স্পিড টেস্টের মাধ্যমেই জানতে পারবেন।

ব্যবহার:

  • প্রথমে আপনার ব্রাউজার থেকে GTmetrix লিখে সার্চ করুন এবং সার্চ রেজাল্টে আসা প্রথম লিংকে ক্লিক করুন অথবা সরাসরি এই লিঙ্কে ক্লিক করে GTmetrix এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।
  • এরপর Enter URL to Analyze লেখা ঘরে আপনি যে ওয়েবসাইটের স্পিড টেস্ট করতে চান সেই ওয়েবসাইটের ঠিকানা টাইপ করে Test your Site বাটনে ক্লিক করুন।
  • এরপর বাকি কাজগুলি স্বয়ংক্রিয়ভাবে সম্পন্ন হবে। কিছুক্ষণের মধ্যে আপনি আপনার ওয়েবসাইট বা আপনি যে পৃষ্ঠাটি পরীক্ষা করতে চান তার ফলাফল নিচের ছবির মত দেখতে পাবেন।
  • আপনি যদি অন্য কোনো ওয়েবসাইটের সাথে আপনার সাইটের তুলনা করতে চান, তাহলে উপরের ডানদিকে আপনি Compare লেখা বাটনে ক্লিক করুন।
  • Compare বাটনে ক্লিক করার পর স্ক্রিনের ডান পাশ থেকে একটি পপ আপ উইন্ডো ওপেন হবে। এখানে Enter URL to compare এর ঘরে আপনার প্রতিযোগী ওয়েবসাইট বা আপনি যে ওয়েবসাইট তুলনা করতে চান তার URL লিখে Compare বাটনে ক্লিক করুন।
  • কিছুক্ষণের মধ্যেই আপনি স্ক্রিনে ওয়েবসাইট দুটির ফলাফল দেখতে পাবেন এবং বুঝতে পারবেন যে আপনার সাইটের কী অবস্থা।

Pingdom

পরবর্তী ওয়েবসাইট স্পিড টেস্ট টুলের নাম হল Pingdom Website Speed ​​Test। এই টুলটির সাহায্যেও আপনি আপনার ওয়েবসাইট বা যেকোন লিঙ্কের গতি পরীক্ষা করতে পারবেন এবং এর কার্যক্ষমতা খুব সঠিক ভাবে পরীক্ষা করতে পারবেন।

Pingdom এর একটি বৈশিষ্ট্য হল আপনি বিভিন্ন জায়গা অনুযায়ী ওয়েবসাইটের গতি পরীক্ষা করতে পারবেন এবং উপরের টুলগুলিতে আপনি যেমন পাবেন তার সব কিছুই আপনি এই ওয়েবসাইটেও পাবেন।

এই টুলের মাধ্যমে যা ফলাফল আসে তাও খুব ভাল ফলাফল এবং আপনি যদি সেই ফলাফল অনুযায়ী আপনার ওয়েবসাইটে পরিবর্তন করেন তাহলে অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটের গতি বৃদ্ধি পাবে।

ব্যবহার:

  • প্রথমে আপনার ব্রাউজার থেকে Pingdom লিখে সার্চ করুন এবং সার্চ রেজাল্টে আসা প্রথম লিংকে ক্লিক করুন অথবা সরাসরি এই লিঙ্কে ক্লিক করে Pingdom এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।

 

  • এরপর URL লেখার নিচের ঘরে আপনি যে ওয়েবসাইটের স্পিড টেস্ট করতে চান সেই ওয়েবসাইটের ঠিকানা টাইপ করুন। এরপর Test From লেখার নিচের ড্রপ ডাউন মেনু থেকে আপনি কোন দেশ থেকে আপনার সাইটের স্পীড চেক করতে চান তা সিলেক্ট করে Start Test বাটনে ক্লিক করুন।

 

 

  • এরপর বাকি কাজগুলি স্বয়ংক্রিয়ভাবে সম্পন্ন হবে। কিছুক্ষণের মধ্যে আপনি আপনার ওয়েবসাইট বা আপনি যে পৃষ্ঠাটি পরীক্ষা করতে চান তার ফলাফল নিচের ছবির মত দেখতে পাবেন।

 

  • আপনি চাইলে Download HAR বাটনে ক্লিক করে ফলাফল ডাউনলোড করে রাখতে পারবেন।
আরও পড়ুনঃ কিভাবে ব্লগার সাইটের থিম এবং কন্টেন্ট ব্যাকআপ নেবেন

Uptrends

Uptrends আপনাকে বিভিন্ন ধরনের সেটিংস ব্যবহার করে ফ্রি তে ওয়েবসাইটের গতি পরীক্ষা করার সুযোগ দেয়। উদাহরণস্বরূপ, আপনি এখানে স্ক্রিন সাইজ, Bandwidth throttling, ব্রাউজার, মোবাইল ডিভাইসের মডেল ইত্যাদি সিলেক্ট করতে পারবেন।

আপট্রেন্ডস আপনাকে দশটি বিভিন্ন দেশ থেকে বিনামূল্যে স্পীড টেস্ট করার সুযোগ দেয়। আর যদি আপনি সাইন আপ করেন তাহলে আপনি 200 টিরও বেশী দেশ থেকে স্পীড চেক করতে পারবেন।

ব্যাবহার

  • Uptrends এর মাধ্যমে স্পীড টেস্ট করতে চাইলে প্রথমে এই লিংকে ক্লিক করুন । লিংকে ক্লিক করার পর আপনারা নিচের ছবির মত দেখতে পাবেন।
  • এরপর I want to test লেখার ডান পাশের ঘরে আপনি যে ওয়েবসাইটের স্পিড টেস্ট করতে চান সেই ওয়েবসাইটের ঠিকানা টাইপ করুন। from লেখার ডান পাশের ঘর থেকে কোন দেশ থেকে আপনার সাইটের স্পীড চেক করতে চান তা সিলেক্ট করুন। এরপর নিচে Desktop বা Mobile যে প্লাটফর্ম থেকে স্পীড চেক করতে চান তা সিলেক্ট করুন। এরপর Screen size, Bandwidth throttling, ব্রাউজার ইত্যাদি যদি সিলেক্ট করতে চান তাহলে আপনার প্রয়োজন মত সিলেক্ট করে Start Test বাটনে ক্লিক করুন।
  • এরপর বাকি কাজগুলি স্বয়ংক্রিয়ভাবে সম্পন্ন হবে। কিছুক্ষণের মধ্যে আপনি আপনার ওয়েবসাইট বা আপনি যে পৃষ্ঠাটি পরীক্ষা করতে চান তার ফলাফল নিচের ছবির মত দেখতে পাবেন।

এছাড়াও আরও কিছু ফ্রী ওয়েবসাইট স্পীড টেস্ট টুলস রয়েছে। সেগুলোর তালিকা নিচে দেওয়া হল –

শেষ কথা

আমরা ইতিমধ্যেই বলেছি যে, কোন ওয়েবসাইট বা ব্লগের গতি কেন গুরুত্বপূর্ণ এবং কেন আপনার এই বিষয়ে সতর্ক হওয়া উচিত।

বর্তমান সময়ে, একটি ওয়েবসাইট বা একটি ব্লগের গতি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এমনকি যদি আপনার ওয়েবসাইট 1 সেকেন্ড দেরিতে ওপেন হয়, তবে আপনার প্রচুর ট্রাফিক অন্য ওয়েবসাইটে চলে যায়।

আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগের গতি বাড়াতে চান, তাহলে সবার আগে আপনার ওয়েবসাইটের গতি পরীক্ষা করা উচিত। আশা করি উপরে দেখানো ফ্রি ওয়েবসাইট স্পীড টেস্ট টুল আপনাকে এই কাজে সাহায্য করতে পারে। একটি ভাল ওয়েবসাইট বা ব্লগের লক্ষণ হল এর গতি। তাই এখনই আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগের স্পীড পরীক্ষা করুন।

আর্টিকেলটি নিয়ে কোন প্রশ্ন বা মন্তব্য থাকলে কমেন্ট সেকশনে জানান।

ধন্যবাদ

Share on:

আমি অঞ্জন, এই সাইটটির প্রতিষ্ঠাতা। এই ব্লগে টিপস & ট্রিকস, অনলাইন ইনকাম, কম্পিউটার সমস্যা সমাধান সহ আরো অনেক কিছুর উপর সঠিক ও নির্ভুল তথ্য দেওয়া হয়।

Leave a Comment