কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে গুগল এএমপি সেটআপ করবেন?

আপনি কি জানেন Google AMP প্লাগইন কি এবং এএমপির ফুল ফর্ম কি? অথবা যদি আপনি মোবাইলে আপনার ব্লগের গতি বাড়ানোর জন্য গুগল এএমপি কিভাবে সেটআপ করবেন তা জানতে চান, তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। এএমপি, ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিডকে ব্যাপকভাবে উন্নত করে, যার কারণে ওয়েবসাইটটি খুব অল্প সময়ে মোবাইলে লোড হয়ে যায়। তাহলে আসুন জেনে নিই গুগল এএমপি প্লাগইন কি এবং কিভাবে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে গুগল এএমপি সেটআপ করবেন ।

বর্তমান সময়ে, প্রায় ৮০% মোবাইল ব্যবহার করা হচ্ছে, তাই ইন্টারনেটে বেশিরভাগ সামগ্রী অনুসন্ধান মোবাইলেই ঘটে থাকে। কম্পিউটারের তুলনায় মোবাইল ব্যবহারকারীর মাত্রা বর্তমানে অনেক বেড়ে গেছে। এজন্যই গুগল মোবাইল ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতাকে আরও ভাল করার জন্য এএমপি প্লাগিন চালু করেছে। যাতে আপনি যদি মোবাইলে কোন ওয়েব পেজ ভিসিট করেন, তাহলে ওয়েব পেজ অনেক দ্রুত ওপেন হয় এবং ওয়েবসাইটের স্পিড ভালো থাকে, সেই সাথে ওয়েবসাইটক আরো মোবাইল ফ্রেন্ডলি হয়।

AMP এর পূর্ণরূপ – Full form of AMP

AMP Plugin এর পূর্ণরূপ হল “Accelerated Mobile Pages”। AMP প্লাগইন ব্লগাররা তাদের ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগ ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিড কে বৃদ্ধি করতে ব্যবহার করে থাকে।

গুগল এএমপি প্লাগিন কি – What is google AMP in Bangla

AMP মূলত গুগল এবং টুইটারের যৌথ উদ্যোগে তৈরি করা হয়েছে! যাতে মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য গুগলে যেকোনো ওয়েবসাইট অনুসন্ধান করা সহজ হয়! গুগল এএমপির মূল উদ্দেশ্য হল মোবাইল ডিভাইসে ওয়েবসাইট দ্রুত লোড করা। গুগল এএমপি একটি ফ্রি এবং ওপেন সোর্স ফ্রেমওয়ার্ক! গুগল এএমপি প্লাগইন যে কোন ওয়েবসাইটকে মোবাইল ফ্রেন্ডলি করে তুলতে খুবই সহায়ক ভুমিকা পালন করে। Google AMP plugin ব্যবহার করা হয় যাতে কোন ব্যবহারকারী বা ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটে আসে এবং ভিজিটরের সামনে আপনার ওয়েবসাইটের পেজ গুলো যেন অনেক দ্রুত ওপেন হয়!

যদিও ওয়েবসাইটের পেজ ওপেন হওয়ার সময়, আপনার হোস্টিং সার্ভার এবং ব্যবহারকারীর ইন্টারনেটের উপরও অনেকাংশে নির্ভর করে! ওয়ার্ডপ্রেসে এএমপি প্লাগইন ইন্সটল করে আমরা আমাদের ওয়েবসাইটকে মোবাইল বান্ধব করে তুলতে পারি!

ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে কেন গুগল এএমপি প্রয়োজন

যদি কোন ওয়েবসাইটে গুগল এএমপি প্লাগইন ব্যবহার করা হয়, তাহলে ব্যবহারকারীর ইন্টারনেটের গতি কম থাকলেও সেই ওয়েবসাইটের পেজ গুলো দ্রুত ওপেন হয়!

এই প্লাগইনটি শুধুমাত্র মোবাইলে বিষয়বস্তু পড়ার উপর ফোকাস করে, যা আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি করে!

এএমপি এনাবল সাইটগুলোকে গুগল বেশী গুরুত্ব দিয়ে থাকে! সার্চ র‍্যাঙ্কিংয়ে এই সুবিধার কারণে আপনার ওয়েবসাইটে ভিসিটর বাড়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়!

AMP প্লাগইন ওয়েবসাইটের বিষয়বস্তু পড়তে সাহায্য করে। অন্যভাবে বলতে গেলে আপনার ব্লগের বিষয়বস্তু পাঠযোগ্য আকারে অপ্টিমাইজ হয়ে যায়, যা ওয়েবসাইটের বাউন্স রেট কমায় এবং ব্যবহারকারী অনেক সময় ধরে ওয়েবসাইটে থাকে!

গুগল এএমপি প্লাগইন সেট আপ করার ফলে, আপনার ওয়েবসাইট দেখতে আরো আকর্ষণীয় মনে হয়, যার কারণে সিটিআর (CTR) বাড়তে শুরু করে!

আরও পড়ুনঃ নতুন ব্লগে ট্রাফিক নিয়ে আসার উপায়

গুগল এএমপি কিভাবে কাজ করে?

গুগল এএমপি বা এক্সিলারেশন মোবাইল পেজ, এইচটিএমএল এবং জাভাস্ক্রিপ্ট খুব কম ব্যবহার করে। ওয়েবসাইটের বিষয়বস্তু গুগল এএমপি ক্যাশ ফাইলে সংরক্ষন করে রাখে। যখন ব্যবহারকারীরা ওয়েবসাইটের কন্টেন্টে ক্লিক করে, গুগল ক্যাশ ফাইলে সংরক্ষিত ডেটা থেকে বিষয়বস্তু ব্যবহারকারীর সামনে উপস্থাপন করে, যার ফলে ওয়েবসাইটের কন্টেন্ট খুব দ্রুত ওপেন হয়।

গুগল এএমপির সুবিধা এবং অসুবিধা

অনেক এসইও বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে গুগল এএমপি plugin তুলনায় এএমপি গুগল র‍্যাকিং এর ক্ষেত্রে বেশি সহায়ক, কিন্তু গুগল এএমপি এর বড় সুবিধা হয় ব্যবহারকারীর ইন্টারনেট ধীরগতির হলেও ওয়েবসাইটের পেজ খুব দ্রুত ওপেন হয়।

শুধুমাত্র HTML, জাভাস্ক্রিপ্ট এবং CSS এর লিমিট AMP তে সেট করা যায়। আপনি সাধারণত যেসব উইজেট বা ফিচার ব্যবহার করেন তার সব আপনি AMP তে যোগ করতে পারবেন না। । যেমন- ফেসবুকের মত লাইক বক্স বা অন্যান্য ডায়নামিক ফিচার গুগল এএমপিতে যোগ করা যাবে না। গুগল এএমপি তে সবকিছু সীমার মধ্যে ব্যবহার করতে হবে।

এএমপি শুধুমাত্র গুগল অ্যানালিটিক্স সমর্থন করে। এটি অন্যান্য অ্যানালিটিক্স প্ল্যাটফর্ম সমর্থন করে না।

আপনি এএমপি মোবাইল পেজে গুগল অ্যাডসেন্স, অ্যামাজন, ফ্লিপকার্ট ইত্যাদি মিডিয়া প্লাটফর্মের এড বা বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করাতে পারবেন।

কিভাবে এএমপি সেটআপ করবেন?

আপনি চাইলে মোবাইলের ক্ষেত্রে আপনার ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিড বাড়াতে পারেন। সুতরাং আপনি আপনার ব্লগের জন্য AMP ইনস্টল করতে পারেন। যদি আপনার ওয়েবসাইটের কন্টেন্ট বা পেজ লোড হতে বেশি সময় নেয় তাহলে আপনি এর জন্য এএমপি ইনস্টল করতে পারেন এবং পেজ লোডিং দ্রুত করতে পারে। এখানে আমরা ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারীদের জন্য গুগল এএমপি সেটআপ করার প্রক্রিয়াটি ধাপে ধাপে আলোচনা করছি।

ওয়ার্ডপ্রেসে গুগল এএমপি সেটআপ

আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে AMP প্লাগইন সেটআপ করার জন্য আপনাকে কিছু সহজ ধাপ অনুসরণ করতে হবে-

  • গুগল এএমপি প্লাগইন সেটআপ করতে, প্রথমে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে লগইন করুন!
  • ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে লগইন করার পর, প্লাগইন অপশনে ক্লিক করুন এবং তারপর “Add new” এ ক্লিক করুন!
  • এখন আপনি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন সাইটে পৌঁছে যাবেন, যেখানে আপনি ” AMP ” লিখে সার্চ করুন। এরপর আপনি নিচের চিত্রের মত দেখতে পাবেন। সেখান থেকে Install now বাটনে ক্লিক করে প্লাগিন টি ইন্সটল করুন। প্লাগিন টি ইন্সটল শেষ হলে Active বাটনে ক্লিক করুন।
গুগল এএমপি প্লাগিন
  • প্লাগিন টি Active করার পরে, আপনার ওয়েবসাইটের ড্যাশবোর্ড মেনু থেকে AMP তে ক্লিক করুন। সেখানে AMP plugin আপনাকে ডিফল্ট সেটিং ব্যবহার করার জন্য সাজেস্ট করবে।
  • আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটের পোস্ট, পেজ এবং মিডিয়া AMP ভার্সনে কনভার্ট করতে চান তাহলে আপনি সেগুলকে এনাবল (বাম পাশের বক্সে টিক মার্ক দিয়ে দিন) করে দিন।
  • আপনি যদি AMP প্লাগইনের সেটিং অপশনে যেতে চান তাহলে আপনার ওয়েবসাইটের ড্যাশবোর্ডের Appearance থেকে AMP তে ক্লিক করুন
  • এএমপি ওপেন হওয়ার পরে, আপনার ওয়েবসাইট মোবাইলে দেখতে কেমন লাগবে সেটি সেটিং করতে পারেন। আপনি নীচের ছবির এএমপি প্লাগইন সেটিংটি দেখে বুঝতে পারেন।
  • আপনি AMP প্লাগইন সেটিংয়ে হেডার ব্যাকগ্রাউন্ড কালার বা হেডার টেক্সট কালার পরিবর্তন করতে পারেন। হেডার background পরিবর্তন করতে আপনি লিঙ্ক ব্যবহার করতে পারেন।
  • আপনি AMP প্লাগইন -এ সাইটের লোগো বা আইকন পরিবর্তন করতে পারেন। যদি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস থিম এটি সাপোর্ট করে।
  • সমস্ত এএমপি সেটিং সম্পন্ন করার পরে, সর্বশেষ “Save and Publish” বাটনে ক্লিক করুন।

আরও পড়ুনঃ কিভাবে ওয়েবসাইট স্প্যাম স্কোর কমানো যায়

ওয়েবসাইটে এএমপি প্লাগইন কাজ করছে কিনা চেক করার উপায়

এএমপি প্লাগইন ইন্সটল এবং সেটিং সম্পন্ন করার পর, এটি ওয়েবসাইটে ঠিক মত প্রয়োগ করা হয়েছে কিনা তা পরীক্ষা করা খুব সহজ। এটি চেক করার জন্য যে কোন পোস্টের ইউআরএল লিংক কপি করে মোবাইলে যে কোন ব্রাউজারে যান। URL এর শেষে /AMP লিখুন এবং ক্লিক করুন। এখন আপনি দেখবেন যে ওয়েব পেজের গতি ইতিমধ্যেই বৃদ্ধি পেয়েছে এবং ওয়েব পেজের বিষয়বস্তু স্পষ্টভাবে রিড ফর্মে দেখা যাচ্ছে।

কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট থেকে এএমপি প্লাগইন Disable করবেন

AMP এর মূল উদ্দেশ্য হল ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতা এবং আপনার ওয়েবসাইটের লোডিং স্পীড বৃদ্ধি করা। তা সত্ত্বেও, এর অনেক ত্রুটি রয়েছে এবং সবচেয়ে বড় ত্রুটি হল যে আপনার ওয়েবসাইটের উপার্জনের উপর একটি বড় প্রভাব ফেলে।

ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট থেকে এএমপি প্লাগইন Disable করার জন্য প্রথমে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে লগইন করুন। তারপরে প্লাগইন পেজে যান এবং Accelerated Mobile Pages এর নিচে থাকা Deactive অপশনে ক্লিক করে প্লাগিন টি ডিসেবল করে দিন।

শেষ কথা

এই পোস্টে আমরা শিখেছি গুগল এএমপি কি, এএমপি এর পূর্ণ রূপ এবং কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেসে এএমপি প্লাগইন ইনস্টল করা যায়।আমরা আপনাদের ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে, ধাপে ধাপে গুগল এএমপি প্লাগইন ইনস্টল এবং সেটআপ করা দেখিয়েছি। আশা করছি গুগল এএমপি প্লাগিন সম্পর্কে দেওয়া আমাদের এই তথ্য গুলো আপনার কাজে আসবে। আর্টিকেলটি নিয়ে কোন মতামত বা প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট বক্সে জানান। ধন্যবাদ

Share on:

আমি অঞ্জন, এই সাইটটির প্রতিষ্ঠাতা। এই ব্লগে টিপস & ট্রিকস, অনলাইন ইনকাম, কম্পিউটার সমস্যা সমাধান সহ আরো অনেক কিছুর উপর সঠিক ও নির্ভুল তথ্য দেওয়া হয়।

Leave a Comment