কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দেওয়ার আগে করণীয়

আমরা যারা কম্পিউটার বা পিসি ব্যবহার করি, তাদের বিভিন্ন সময় কম্পিউটারের অনেক ধরনের সমস্যার কারনে কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দেওয়ার প্রয়োজন পরে । ইলেক্ট্রনিক্স যে কোন যন্ত্র মানে কোন এক সময় কিছু না কিছু প্রবলেম হবেই, আর কম্পিউটার যেহেতু একটি ইলেক্ট্রনিক যন্ত্র তাই এটির ক্ষেত্রেও সমস্যা হওয়া স্বাভাবিক। কিন্তু আমরা বেশিভাগই, কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দেওয়ার আগে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গুলো নিতে ভুলে যাই। অসর্তক অবস্থায় কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দিলে আপনি নিজের অজান্তেই অনেক ধরনের বিপদে পরে যেতে পারেন! আপনার প্রাইভেসি নষ্ট হওয়া থেকে শুরু করে আরও অনেক ধরনের বিপদ হতে পারে।

কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দেওয়ার আগে করণীয় বিষয়

আমরা যারা কম্পিউটার ইউজ করতে পছন্দ করি বা নিজের অফিসের কাজের প্রয়োজনে অথবা অন্য যে কোন কাজে ব্যবহার করি তারা সবাই চাই আমাদের কম্পিউটারে থাকা প্রত্যেকটি জিনিস গুলো যেন সুরক্ষিত থাকে। কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দেওয়ার পূর্বে আমাদের যেসব সাধারণ ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলোর উপর নজর দেওয়া উচিত এবং কি কারনে উচিত তা নিয়েই আজকের এই আর্টিকেলে বিস্তারিত আলোচনা করব।

ডাটা ব্যাকআপ নেওয়া

কম্পিউটারে আমাদের প্রয়োজনীয় অনেক ধরণের ফাইল থাকে, সেটা হতে পারে ছবি,গান, মুভি, টিউটোরিয়াল ভিডিও বা অন্য যে কোন প্রয়জনীও কিছু। কম্পিউটারের সমস্যা বিভিন্ন রকমের হতে পারে যেমন- অনেকেই পিসি তে উইন্ডোজ ইন্সটল করতে পারে না, তাই কাস্টমার কেয়ারে নিয়ে যায় । অনেকে যে কোন হার্ডওয়্যার জনিত সমস্যার কারনে সার্ভিসিং সেন্টারে নিয়ে যায় আবার কেউ বা অন্য কোন সমস্যার কারনে। যে যেই কারণেই কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দিক না কেন, আমাদের উচিত প্রয়োজনীও ডাটা, বিশেষ করে নিজেদের ব্যাক্তিগত ছবি, ভিডিও এবং প্রয়োজনীয় ফাইল গুলো কপি বা কাট করে অন্য জায়গায় ব্যকাআপ হিসেবে রেখে দেওয়া।

কারণ কম্পিউটার সার্ভিসিং করার সময় কোন কারনে যদি আপনার পিসি তে উইন্ডোজ দেওয়ার প্রয়োজন পরে, তাহলে সি ড্রাইভে প্রয়োজনীয় কোন ফাইল থাকলে তা ডিলিট হয়ে যাবে । আবার অনেক সময় হার্ডডিস্ক ভুল করে ডিলিট হয়ে যেতে পারে। আপনারা খেয়াল করে দেখবেন যে রিপেয়ারিং সেন্টারে লেখা থাকে যে “কম্পিউটার সার্ভিসিং করা কালীন সময়ে কোন ডাটা নষ্ট বা ডিলিট হয়ে গেলে তারা দায়ী থাকবে না” । তাই আপনার প্রয়োজনীয় এবং ইম্পরট্যান্ট ডাটা গুলো ব্যকআপ হিসেবে পেন ড্রাইভ বা ক্লাউড ড্রাইভে সংরক্ষন করে রেখে দিন।

প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার ও গেম চেক করা

কম্পিউটার মানেই এর মধ্যে থাকবে বিভিন্ন কাজে ব্যবহারের জন্য অনেক রকমের সফটওয়্যার। আমাদের কাজ করার সুবিধারতে আমরা আমাদের পিসিতে থাকা সফটওয়্যার গুলোর সেটিংস নিজেদের প্রয়োজন অনুযায়ী কাস্টমাইজ করে থাকি। যখন আমরা কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দেবো তখন আমাদের পিসি তে অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করার প্রয়োজন পরতে পারে । তাই যদি সম্ভব হয় আগে থেকেই সেটিং ব্যাকআপ নিয়ে রাখবেন। ঠিক তেমনি গেম লাভাররাও কিন্তু এই সমস্যায় পড়তে পারেন যে একটা গেমের কোন একটি মিশন অর্ধেক এনে রেখে দিয়েছেন এবং পরে ভুলে উইন্ডোজ ইন্সটল করতে গিয়ে সব শেষ, তাই সাবধান।

অনলাইন অ্যাকাউন্ট রিমুভ বা লগআউট করা

বর্তমান অনলাইন নির্ভর এই যুগে আমাদের নিজেদের প্রতি খেয়াল রাখার থেকে নিজেদের অনলাইন অ্যাকাউন্ট গুলোর দিকে বেশী গুরুত্ব দেওয়ার প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। কারণ আমরা সকাল থেকে রাত পর্যন্ত আমাদের স্মার্টফোন বা কম্পিউটারকে আমাদের সঙ্গি করে নিয়েছি। কম্পিউটারে আমরা আমাদের নিজেদের জিমেইল, ফেসবুক, টুইটার সহ অন্যান্য অনলাইন অ্যাকাউন্ট গুলো ইউজ করে থাকি। তাই কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দেওয়ার আগে অবশ্যই সব গুলো অনলাইন একাউন্ট থেকে লগ আউট করা উচিত।

 যদি লগআউট না করেন, তাহলে এমনটি হতে পারে, যে ব্যক্তি বা দোকানে আপনি আপনার কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দিয়েছেন সেই ব্যক্তি আপনার অনুমতি ছাড়া আপনার অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করে আপনার অনেক ধরনের ক্ষতি করে ফেলতে পারে । এমন ঘটনা ঘটা এখন অস্বাভাবিক কিছু নাহ। সাইবার জগতের অ্যাটাক থেকে বাঁচতে হলে এই পদক্ষেপ গ্রহন করাটা অত্যন্ত জরুরী।

ব্রাউজারে পাসওয়ার্ড সেভ না রাখা

বর্তমানে ব্রাউজার আমাদের একটি সুবিধা প্রদান করে থাকে আর সেটা হলো, যখন আমরা কোন ওয়েবসাইটে লগিন করি তখন ব্রাউজারে পাসওয়ার্ড গুলো সংরক্ষন করে রাখা যায় । এর ফলে পরবর্তীতে পাসওয়ার্ড টাইপ না করেই সহজে লগিন করা যায়। কিন্তু এটি যেমন আপনার কাজকে অনেক সহজ করে দিয়েছে, সেই সাথে এটির দ্বারা আপনি ক্ষতির মুখেও পড়তে পারেন । কারণ আপনার এই সেভ করা পাসওয়ার্ড খুব সহজেই বিভিন্ন ভাবে দেখা সম্ভব। তাই কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দেয়ার আগে আপনার ব্রাউজারের ডাটা অবশ্যই ক্লিয়ার করুন এবং সেই সাথে পাসওয়ার্ড গুলো আনসেভ করে দিন।

নিজেদের পার্সোনাল ফটো ও ভিডিও সরিয়ে রাখা

আমাদের ব্যক্তিগত কম্পিউটার মানে সেখানে ব্যক্তিগত ছবি, ভিডিও থাকবে এটাই স্বাভাবিক। অনেকেই আছেন যারা তাদের এমন অনেক পার্সোনাল মূহুর্তের ছবি ক্যামেরা বন্দী করে রাখে যা কোন অসাধু ব্যক্তির হাতে পরলে অনেক ধরনের সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে। বিশেষ করে মেয়েরা তাদের ল্যাপটপ অথবা ডেস্কটপ কম্পিউটার যাই হোক না কেন তা সার্ভিসিং করতে দেয়ার আগে নিজেদের ছবি বা ভিডিও গুলো কাট বা মুভ করে অন্য জায়গায় (পেন ড্রাইভ বা ক্লাউড ড্রাইভে) সরিয়ে রাখবেন।

আসলে কার মনে কি আছে সেটাতো জানা সম্ভব নয় । হয়তো এমন হতে পারে আপনার ছবি গুলো দোকানের কোন ব্যক্তি কালেক্ট করে আপনাকে ব্ল্যাকমেইল পর্যন্ত করতে পারে। এই বিষয়টি অনেক মুভি তে দেখা যায় যে কম্পিউটার অথবা মোবাইল সার্ভিসের এর দোকান গুলোর লোকেরা ছবি বা ভিডিও সংগ্রহ করে অনেক রকমের হয়রানিমুলক কর্মকাণ্ড করে থাকে। আপনি যদি এখন ভেবে থাকে যে এই গুলো শুধুমাত্র মুভিতেই হয় তাহলে আপনার ধারনা সম্পূর্ণ ভুল। বাস্তব জীবনে এই ধরনের ঘটনা ঘটে বলেই মুভি গুলো এর মাধ্যমে সর্তকতা বার্তা দিয়ে যায়। তাই এই বিষয়ে খুব সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত।

এছাড়াও আরও অনেক কিছু রয়েছে যেগুলোর উপর সতর্ক দৃষ্টি দেওয়া উচিত এবং আর এই বিষয় গুলো কি কি সেটা আপনি নিজেই নিজেকে প্রশ্ন করলেই উত্তর পেয়ে যাবেন। যেহেতু আপনার জিনিস তাই আপনিই ভালো জানবেন যে কোন জিনিসটি অন্যের হাতে পরে গেলে আপনার ক্ষতি হতে পারে। আমি শুধুমাত্র কমন বিষয় গুলো আপনাদের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। আশা করি এর পর থেকে কম্পিউটার সাভিসিং করতে দেওয়ার আগে অবশ্যই উপরের বিষয় গুলো মাথায় রাখবেন।

বিডিটেকটিউনার

Share on:

আমি অঞ্জন, এই সাইটটির প্রতিষ্ঠাতা। এই ব্লগে টিপস & ট্রিকস, অনলাইন ইনকাম, কম্পিউটার সমস্যা সমাধান সহ আরো অনেক কিছুর উপর সঠিক ও নির্ভুল তথ্য দেওয়া হয়।

2 thoughts on “কম্পিউটার সার্ভিসিং করতে দেওয়ার আগে করণীয়”

Leave a Comment