কীভাবে দারাজ অ্যাফিলিয়েট একাউন্ট তৈরি করবেন

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হল কোন কোম্পানির পণ্য প্রচার এবং বিক্রি করে কমিশনের মাধ্যমে টাকা উপার্জনের একটি প্রক্রিয়া। আরও সহজ ভাষায় বলতে গেলে, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হল, আপনার ওয়েবসাইট, ইউটিউব চ্যানেল বা সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম এর মাধ্যমে কোন কোম্পানির পণ্য প্রচারণা এবং বিক্রি করে, সেই বিক্রিত প্রতিটি পন্য থেকে কমিশনের মাধ্যমে টাকা ইনকাম করার পদ্ধতি। আপনারা বাংলাদেশ থেকে দারাজ অ্যাফিলিয়েট একাউন্ট এর মাধ্যমে অ্যাফিলিয়েট মারকেটিং শুরু করতে পারেন।

দারাজ অ্যাফিলিয়েট কি

বর্তমানে দারাজ বাংলাদেশের বৃহত্তম ই-কমার্স ওয়েবসাইট বা অনলাইন মার্কেটপ্লেস। আপনি আপনার ওয়েবসাইট, ইউটিউব চ্যানেল বা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে যদি দারাজের কোন পন্য বিক্রি করেন তাহলে দারাজ এই পন্য বিক্রির জন্য আপনাকে পণ্যের দামের উপর ভিত্তি করে কিছু টাকা কমিশন হিসেবে প্রদান করবে।

দারাজ অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামে যোগ দেয়ার জন্য কি প্রয়োজন

  • আপনার নিজস্ব ওয়েবসাইট/ ইউটিউব চ্যানেল / ফেসবুক পেজ / ফেসবুক গ্রুপ
  • ব্যাংক অ্যাকাউন্ট
  • অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পর্কে ব্যাসিক ধারনা

দারাজ অ্যাফিলিয়েট কমিশন রেট

দারাজ সাধারণত প্রোডাক্টের ক্যাটাগরির উপর ভিত্তি করে সর্বোচ্চ ১০% পর্যন্ত কমিশন দিয়ে থাকে। উদাহরনস্বরূপ আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে দারাজের ১০ হাজার টাকার স্পোর্ট এন্ড ফিটনেস পণ্য বিক্রি করেন তাহলে আপনার কমিশন হবে ১০০০০x৯% = ৯০০ টাকা। আপনার মাধ্যমে আসা ক্রেতা যদি দারাজে একদম নতুন হয় তাহলে আরও ১% অর্থাৎ আরও ১০০ টাকা বেশি কমিশন পাবেন। আর যদি ১৫ এর বেশী পণ্য বিক্রি করতে পারেন তাহলে আরও ১% করে বেশি কমিশন পাবেন। ফলে আপনার টোটাল কমিশন হবে ১১০০ টাকা।

দারাজ অ্যাফিলিয়েট কমিশন রেট এর তালিকা নিচে দেওয়া হল –

আরও পড়ুনঃ অনলাইনে ইনকাম করার সেরা ১৫ উপায়

দারাজ অ্যাফিলিয়েট একাউন্ট তৈরি করার পদ্ধতি

দারাজের অ্যাফিলিয়েট একাউন্ট খোলার জন্য নিচের ধাপ গুলো অনুসরন করুন –

  • এরপর দারাজ অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামে যোগ দেওয়ার জন্য স্ক্রিনের উপরের ডান পাশে থাকা DARAZ AFFILIATE PROGRAM লেখাতে ক্লিক করুন (নিচের ছবিতে দেখুন) অথবা সরাসরি এই লিংকে ক্লিক করুন।
  • এরপর Sign Up Now বাটনে ক্লিক করুন।

এরপর নিচের ছবির মত একটি পেজ দেখতে পাবেন, এখান থেকে Next বাটনে ক্লিক করুন।

  • এরপর নিচের ছবির মত একটি ফর্ম দেখতে পাবেন। এই ফর্মের ১ নং সেকশনে আপনার ওয়েবসাইট/ ইউটিউব চ্যানেল/ সোশ্যাল মিডিয়া এর লিংক দিন। Please tell us about your Business সেকশনে আপনার বিজনেস সম্পর্কিত তথ্য দিন। আমি এইখানে Content Creator / Blogger / Influencer সিলেক্ট করেছি। Please tell us about your monthly traffic সেকশনে আপনার ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেলে প্রতি মাসে কি পরিমাণ ট্রাফিক আসে তা সিলেক্ট করে Next বাটনে ক্লিক করুন।
  • এরপর Bank Information পেজে আপনার ব্যাংক একাউন্টের তথ্য দিয়ে সম্পূর্ণ ফর্ম পুরন করে Next বাটনে ক্লিক করুন । ব্যাংক একাউন্টের তথ্য গুলো সতর্কতার সাথে পুরন করুন যে কোন রকম ভুল না হয়।
আরও পড়ুনঃ কিভাবে ঘরে বসে অনলাইনে ইনকাম করবেন
  • পরের পেজে Tax ID এবং VaT Rate টাইপ করে Next বাটনে ক্লিক করুন।
  • এরপর About You ফর্মে আপনার ইমেইল এড্রেস, পুরো নাম, ফোন নাম্বার, ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার, আপনার সম্পূর্ণ ঠিকানা ইত্যাদি ইনফরমেশন পুরন করে Next বাটনে ক্লিক করুন ।

এরপর দারাজ টিম ম্যানুয়ালি আপনার দেওয়া তথ্য যাচাই করে দেখবে। যদি আপনার প্রোভাইড করা সব তথ্য সঠিক থাকে, তাহলে পরবর্তী সাতদিনের মধ্যে আপনি দারাজ অ্যাফিলিয়েট এর এপ্রুভাল পেয়ে যাবেন ।

শেষ কথা

আমরা আশা করছি উপরের দেখানো পদ্ধতি অনুসরন করে খুব সহজেই দারাজ অ্যাফিলিয়েট একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন এবং দারাজের বিভিন্ন ধরনের প্রোডাক্ট বিক্রি করে, দারাজ অ্যাফিলিয়েটের মাধ্যমে ভাল পরিমাণ অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

আর্টিকেলটি নিয়ে যে কোন ধরনের প্রশ্ন বা মন্তব্য থাকলে কমেন্ট সেকশনে জানান।

ধন্যবাদ

Share on:

আমি অঞ্জন, এই সাইটটির প্রতিষ্ঠাতা। এই ব্লগে টিপস & ট্রিকস, অনলাইন ইনকাম, কম্পিউটার সমস্যা সমাধান সহ আরো অনেক কিছুর উপর সঠিক ও নির্ভুল তথ্য দেওয়া হয়।

Leave a Comment