SSL সার্টিফিকেট আপনার ওয়েবসাইটের জন্য কেন প্রয়োজন

আপনি কি জানেন SSL কি? SSL ফুল ফর্ম কি? SSL সার্টিফিকেট কত প্রকার? কেন SSL সার্টিফিকেট কিনতে হবে? যে কোনো ওয়েবসাইটের নিরাপত্তার জন্য SSL সার্টিফিকেট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আজকের আর্টিকেলে আমরা SSL কি, SSL সার্টিফিকেট কত প্রকার এবং SSL সার্টিফিকেট আপনার ওয়েবসাইটের জন্য কেন প্রয়োজন ইত্যাদি বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

আপনি প্রায় প্রতিটি ওয়েবসাইটের URL এর বাম পাশে একটি লক চিহ্ন দেখতে পাবেন। প্রকৃতপক্ষে এই লকটি সেই ওয়েবসাইটে এসএসএল সার্টিফিকেটের উপস্থিতির প্রমান দেয় এবং এর মানে হল যে এই ওয়েবসাইটটি SSL সার্টিফিকেট দিয়ে সুরক্ষিত।

SSL মূলত একটি নিরাপত্তা স্তর, তাই প্রতিটি ওয়েবসাইটে SSL সার্টিফিকেট ব্যবহার করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। SSL সার্টিফিকেট আপনার ওয়েবসাইট এবং আপনার ওয়েবসাইটের তথ্য হ্যাকারদের থেকে রক্ষা করে।

SSL এর পূর্ণরূপ কি

SSL এর পূর্ণরূপ হচ্ছে সিকিউর সকেটস লেয়ার (Secure Sockets Layer)। SSL এর পোর্ট নম্বর 443 । SSL- এ সকেট শব্দটির অর্থ হল আপনার সার্ভার এবং ওয়েব ব্রাউজারের মধ্যে সকেট মেথডের মাধ্যমে তথ্য আদান প্রদান হয়ে থাকে।

SSL কি – What is SSL in Bangla

SSL হল বর্তমান সময়ের একটি স্ট্যান্ডার্ড সিকিউরিটি টেকনিক। SSL হল একটি এনক্রিপ্ট করা প্রোটোকল যা আপনার ওয়েব সার্ভার এবং আপনার ওয়েব ব্রাউজারের মধ্যে একটি নিরাপদ সংযোগ স্থাপন করে। এবং এটি নিশ্চিত করে যে আপনার ওয়েব সার্ভার এবং ব্রাউজারের মধ্যে স্থানান্তরিত ডেটা হ্যাকারদের থেকে নিরাপদ।

SSL সার্টিফিকেট কি – What is SSL certificate in Bangla

এসএসএল সার্টিফিকেট হল এক ধরনের ডিজিটাল সার্টিফিকেট, যা একটি ওয়েব সার্ভার এবং ব্রাউজারের মধ্যে একটি এনক্রিপ্ট করা সংযোগ স্থাপন করার জন্য, ওয়েব সার্ভারে ইনস্টল করা হয়। একটি SSL সার্টিফিকেট এর সাথে ২ টি কী থাকে। প্রথমটি ব্যক্তিগত কী এবং দ্বিতীয় টি হল পাবলিক কী। ব্যক্তিগত কী নিরাপদ ভাবে রাখা হয়। আর সার্টিফিকেট সহ পাবলিক কী প্রকাশ্যে বিতরণ করা হয়।

সাধারণত, ওয়েবসাইটে এসএসএল সার্টিফিকেট ব্যবহার করা হয়, ক্রেডিট কার্ড এবং ডেবিট কার্ড লেনদেন, ডেটা ট্রান্সফার, ব্যবহারকারীর নাম, পাসওয়ার্ড বা সেই ওয়েবসাইটে যে কোনও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিগত ডেটা লেনদেন সুরক্ষিত রাখার জন্য।

তাই যখনই আপনি কোন ওয়েবসাইটে আপনার ব্যক্তিগত বা প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করবেন অথবা আপনার ক্রেডিট কার্ড এবং ডেবিট কার্ড দিয়ে যে কোন কিছু কিনবেন, তার আগে নিশ্চিত হয়ে নিন যে ওয়েবসাইটটিতে এসএসএল সার্টিফিকেট ব্যবহার করা হয়েছে।

এখন আপনার মনে প্রশ্ন আসতে পারে কোন ওয়েবসাইট এসএসএল সার্টিফিকেট ব্যবহার করছে তা আমরা কিভাবে বুঝব ? এবং কোন ওয়েবসাইট SSL সার্টিফিকেট ছাড়া চলছে?

কোন ওয়েবসাইটের এসএসএল সার্টিফিকেট চেক করার জন্য প্রথমে আপনি সেই ওয়েবসাইটের URL দেখুন। আপনি দেখতে পাবেন যে URL টি HTTP অথবা HTTPS এর দ্বারা শুরু হয়েছে। যদি আপনি দেখেন যে URL টি HTTPS দিয়ে শুরু হয়েছে, তার মানে এই ওয়েবসাইটটি SSL সার্টিফিকেট ব্যবহার করছে। আর যেহেতু ওয়েবসাইটটি এসএসএল সার্টিফিকেট ব্যবহার করছে তাই এটি একটি নিরাপদ ওয়েবসাইট হিসেবে ধরে নেওয়া যায়। আপনি https এর শুরুতে একটি তালার ছবিও দেখতে পাবেন। আপনি যদি এই লকে ক্লিক করেন, তাহলে আপনি এসএসএল সার্টিফিকেট সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য দেখতে পাবেন।

যদি URL টি http দিয়ে শুরু হয় তাহলে এই ওয়েবসাইটটি এসএসএল সার্টিফিকেট ব্যবহার করছে না এবং এটি একটি অনিরাপদ ওয়েবসাইট। সুতরাং আপনার এই ধরনের ওয়েবসাইটে যে কোন ধরনের লেনদেন করা এড়িয়ে চলা উচিত।

SSL সার্টিফিকেট কি ধরনের তথ্য অন্তর্ভুক্ত থাকে

একটি SSL সার্টিফিকেটে নিম্নলিখিত তথ্য অন্তর্ভুক্ত থাকে –

  • ডোমেইন নামের জন্য এসএসএল সার্টিফিকেট ইস্যু করা হয়েছে।
  • সেই ব্যক্তি, কোম্পানি বা ডিভাইস সম্পর্কে তথ্য যার জন্য SSL সার্টিফিকেট দেওয়া হয়েছে।
  • যে সার্টিফিকেট কর্তৃপক্ষ এসএসএল সার্টিফিকেট ইস্যু করেছে তার নাম।
  • সার্টিফিকেট কর্তৃপক্ষের ডিজিটাল স্বাক্ষর
  • এসএসএল সার্টিফিকেট ইস্যু করার তারিখ
  • এসএসএল সার্টিফিকেটের মেয়াদ শেষ হওয়ার তারিখ
  • পাবলিক কী

আরও পড়ুনঃ গুগল বট কী এবং এটি কীভাবে কাজ করে?

এসএসএল সার্টিফিকেট কত প্রকার

  • সিঙ্গেল ডোমেইন এসএসএল সার্টিফিকেট
  • ওয়াইল্ডকার্ড এসএসএল সার্টিফিকেট
  • মাল্টি-ডোমেইন এসএসএল সার্টিফিকেট
  • ডোমেইন Validation SSL সার্টিফিকেট
  • Organization Validation এসএসএল সার্টিফিকেট
  • Extended Validation SSL সার্টিফিকেট

সিঙ্গেল ডোমেইন এসএসএল সার্টিফিকেট

একক ডোমেইন এসএসএল সার্টিফিকেট শুধুমাত্র একটি ডোমেইন নামকে সুরক্ষিত রাখবে মানে একটি ওয়েবসাইটকে। উদাহরণস্বরূপ যদি আমরা আমাদের ওয়েবসাইটের জন্য একক ডোমেইন SSL সার্টিফিকেট ব্যবহার করি তাহলে এই সার্টিফিকেট শুধুমাত্র www.bdtechtuner.com কে রক্ষা করে। এছাড়া সিঙ্গেল ডোমেইন SSL সার্টিফিকেট আপনার ওয়েবসাইটের সাব ডোমেইন কে সুরক্ষা প্রদান করবে না।

ওয়াইল্ডকার্ড এসএসএল সার্টিফিকেট

ওয়াইল্ডকার্ড এসএসএল সার্টিফিকেট, একটি ডোমেইন এবং তার অনেক সাব-ডোমেইনকে সুরক্ষিত করে। এটি একটি ওয়াইল্ডকার্ড অক্ষর (*) সহ একটি একক সার্টিফিকেট। এখানে * (Asterisk Symbol) মানে সাব-ডোমেইন নেম।

উদাহরণস্বরূপ, যদি আমরা আমাদের ওয়েবসাইটের জন্য ওয়াইল্ডকার্ড SSL সার্টিফিকেট ব্যবহার করি, তাহলে এই সার্টিফিকেটটি www.bdtechtuner.com এর পাশাপাশি bdtechtuner ওয়েবসাইটের সমস্ত সাব-ডোমেইনকে সুরক্ষিত করবে।

মাল্টি-ডোমেইন SSL সার্টিফিকেট

মাল্টি-ডোমেইন এসএসএল সার্টিফিকেট একসাথে একাধিক ওয়েবসাইটকে রক্ষা করে। অর্থাৎ, আপনি একাধিক ওয়েবসাইটের সুরক্ষার জন্য একটি মাল্টি ডোমেইন SSL সার্টিফিকেট ব্যবহার করতে পারেন!

উদাহরণস্বরূপ, ধরুন আপনার একাধিক ব্যবসা আছে এবং আপনি প্রতিটি ব্যবসার জন্য আলাদা ওয়েবসাইট চালান। সুতরাং এমন পরিস্থিতিতে যদি আপনি আপনার সমস্ত ওয়েবসাইট আলাদা আলদা SSL সার্টিফিকেট দিয়ে সুরক্ষিত করতে চান সেটা অনেক ঝামেলার। তাই প্রত্যেকের জন্য আলাদা আলাদা SSL সার্টিফিকেট নেওয়ার পরিবর্তে, আপনি একটি মাল্টি ডোমেইন এসএসএল সার্টিফিকেট দিয়ে সমস্ত ওয়েবসাইট সুরক্ষিত করতে পারবেন।

মাল্টি-ডোমেন এসএসএল সার্টিফিকেটকে UCC (ইউনিফাইড কমিউনিকেশনস সার্টিফিকেট) বা SAN (সাবজেক্ট অলটারনেটিভ নেম সার্টিফিকেট) বলা হয়ে থাকে।

ডোমেইন Validation SSL সার্টিফিকেট

সাধারণত ডোমেইন Validation এসএসএল সার্টিফিকেট সস্তা বা বিনামূল্যে পাওয়া যায়। এর সেরা উদাহরণ এনক্রিপ্ট এসএসএল সার্টিফিকেট । DV SSL সার্টিফিকেট 256-বিট এনক্রিপশনের সাথে আসে। যেসব ওয়েবসাইটের ওনার শুধুমাত্র তাদের সাইটের ডোমেইন নাম যাচাই করতে চান, তারা ডোমেইন ভ্যালিডেশান SSL সার্টিফিকেট ব্যবহার করেন।

Organization Validation SSL সার্টিফিকেট

SSL সার্টিফিকেটে প্রতিষ্ঠানের বৈধতা, কোম্পানি, ব্যবসা বা সংগঠন CA অর্থাৎ সার্টিফিকেট অথরিটি দ্বারা যাচাই করা হয়। প্রকৃতপক্ষে অর্গানাইজেশন ভ্যালিডেশন এসএসএল সার্টিফিকেটের মূল উদ্দেশ্য হল ব্যবসার সংবেদনশীল তথ্য এনক্রিপ্ট করা এবং তা সুরক্ষিত করা।

Organization Validation এসএসএল সার্টিফিকেট 2048-বিট Signature এবং 256-বিট এনক্রিপশন সহ আসে! এবং তারা ডোমেইন ভ্যালিডেটেড এসএসএল সার্টিফিকেটের চেয়ে বেশি নিরাপদ এবং নির্ভরযোগ্য।

Extended Validation SSL সার্টিফিকেট

এক্সটেন্ডেড ভ্যালিডেশন এসএসএল সার্টিফিকেট, ডোমেইন ভ্যালিডেশন এবং অর্গানাইজেশন ভ্যালিডেশন এসএসএল সার্টিফিকেট পাওয়ার চেয়ে অনেকটাই কঠিন। কারণ এই এসএসএল সার্টিফিকেট পেতে হলে, কিছু Globally Standardized Identity Verification Process কমপ্লিট করতে হয়। এবং তারপরে এই SSL সার্টিফিকেট সক্রিয় হতে প্রায় এক সপ্তাহের মত সময় প্রয়োজন হয়।

আরও পড়ুনঃ কম্পিউটারে ডিলিট না হওয়া ফাইল বা ফোল্ডার কিভাবে মুছবেন

SSL সার্টিফিকেট যেভাবে কাজ করে

  • যখন কোন ব্রাউজার এসএসএল সার্টিফিকেট আছে এমন কোন ওয়েব Server এর সাথে কানেক্ট হয়, তখন ব্রাউজার প্রথমে তার পরিচয় Web সার্ভার কে পাঠায়।
  • এরপর ওয়েব সার্ভার ব্রাউজারকে তার ওয়েব সার্টিফিকেট পাঠায়।
  • তখন Browser ওয়েব Server টি Trustworthy কিনা তা চেক করে দেখে এবং চেক শেষ হওয়ার পর Web Server কে একটি মেসেজ পাঠায়।
  • এরপর Browser এবং Web সার্ভারের মধ্যে ডিজিটাল Encrypted Data প্রদর্শিত হয়।
  • এই পুরো প্রসেসে, ওয়েব ব্রাউজার এবং ওয়েব সার্ভার নিজেদের মধ্যে ট্রাস্টেটভাবে Data প্রদর্শন করে এবং Browser, ওয়েব সার্ভারের Data Secured দেখায়।

SSL সার্টিফিকেটের সুবিধা

এসএসএল সার্টিফিকেট কী এবং এটি কত প্রকার এই বিষয়গুলো সম্পর্কে আপনি এখন পর্যন্ত জেনেছেন। তাহলে আসুন এখন জেনে নিই SSL সার্টিফিকেটের সুবিধা কি কি

  • এসএসএল সার্টিফিকেট আপনার ওয়েবসাইট ভিজিটরদের ডেটা রক্ষা করে।
  • SSL আপনার ওয়েবসাইটের গুগল সার্চ র‍্যাঙ্কিং বৃদ্ধি করে।
  • এসএসএল সার্টিফিকেট আপনার ওয়েবসাইটের গ্রাহকের বিশ্বাস ও আয় বৃদ্ধি করে।
  • এসএসএল সার্টিফিকেট আপনার ওয়েবসাইটকে বিভিন্ন ধরনের সাইবার আক্রমণ থেকে রক্ষা করে।

কোন ধরনের SSL সার্টিফিকেট কিনতে হবে?

এসএসএল কি এবং কত প্রকারের এসএসএল সার্টিফিকেট আছে সে সম্পর্কে এখন পর্যন্ত আপনি নিশ্চয়ই ভালো করে জেনে গেছেন। তাই এখন সবচেয়ে জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন হল, কোন এসএসএল সার্টিফিকেট আমাদের কিনতে হবে? তাই যদি আপনিও এই প্রশ্নের উত্তর জানতে চান, তাহলে আপনার জন্য উপরে উল্লেখিত SSL সার্টিফিকেটের ধরনগুলি বোঝা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

সুতরাং যদি আপনার একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট থাকে যেখানে লোকেরা প্রতিদিন তাদের ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড দিয়ে লেনদেন করে, তাহলে আপনার উচিত একটি ভালো কোম্পানি এবং বিশ্বস্ত SSL সার্টিফিকেট কেনা।

কিন্তু আপনি যদি একটি নলেজ বেস ব্লগিং ওয়েবসাইট চালান, যেখানে আপনার ভিজিটরদের কোন প্রকার লেনদেন করতে হয় না বা তাদের লগইন করার জন্য ব্যবহারকারীর নাম এবং পাসওয়ার্ডের প্রয়োজন হয় না, তাহলে এই ধরনের ওয়েবসাইটে আপনি ডোমেইন Validation SSL বা নরমাল SSL সার্টিফিকেট ব্যবহার করতে পারেন।

আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটে এসএসএল সার্টিফিকেট এনক্রিপ্ট করতে চান, তাহলে আপনি আপনার ওয়েব হোস্টিং প্রোভাইডারের সাথে কথা বলে এটি ব্যবহার করতে পারেন। অথবা আপনি আপনার নিজের ওয়েবসাইটে এটি ইনস্টল করতে পারেন।

একইভাবে, যদি আপনি আপনার কোম্পানির জন্য এসএসএল সার্টিফিকেট খুঁজছেন, তাহলে আপনি ওয়াইল্ডকার্ড এসএসএল সার্টিফিকেট এবং অর্গানাইজেশন ভ্যালিডেশন এসএসএল সার্টিফিকেট ব্যবহার করতে পারেন।

শেষ কথা

বর্তমানে এসএসএল সার্টিফিকেট বিহীন যে কোন ওয়েবসাইটের উপর বিশ্বাস করা সত্যিই অনেক কঠিন, বিশেষ করে যে সব সাইটে কাস্টমারদের ব্যক্তিগত এবং সংবেদনশীল ইনফরমেশন থাকে। যেমন- Login ইউজার Name, পাসওয়ার্ড, পিন কোড, Payments Details (ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড ইনফরমেশন) ইত্যাদি।

তাই আপনার যদি এমন কোন ওয়েবসাইট থাকে, যেখানে এই ধরনের সংবেদনশীল তথ্য আদান প্রদান করা হয়, তাহলে আপনাকে অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটের জন্য এসএসএল সার্টিফিকেট নিতে হবে, এর ফলে আপনার কাস্টমাররা আপনার সাইটকে পছন্দ করবে এবং সেই সাথে আপনার সাইটের উপর বিশ্বাস তৈরি হবে। সেই সঙ্গে আপনার কাস্টমারদের সংবেদনশীল এবং ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষিত এবং নিরাপদ রাখতে সাহায্য করবে।

Share on:

আমি অঞ্জন, এই সাইটটির প্রতিষ্ঠাতা। এই ব্লগে টিপস & ট্রিকস, অনলাইন ইনকাম, কম্পিউটার সমস্যা সমাধান সহ আরো অনেক কিছুর উপর সঠিক ও নির্ভুল তথ্য দেওয়া হয়।

Leave a Comment